মফিজুল ইসলাম খান

লেখক পরিচিতি

নাম: মফিজুল ইসলাম খান
নিবন্ধন তারিখ: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১১

সাম্প্রতিক লেখাসমূহ

  1. সুখ পাখী — অক্টোবর ১১, ২০১৬
  2. ই-কাব্য গ্রন্থঃ অজাত পদ্ম এবং আমি ফিরে যাবো আমার পর্ণ কুটিরে। — সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৬
  3. তোমার নির্ভাবনায় কাটছে সময় — সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬
  4. দৃশ্যাবলী / মফিজুল ইসলাম খান — মে ২০, ২০১৬
  5. স্বদেশ / মফিজুল ইসলাম — জানুয়ারী ৩০, ২০১৬

এই লেখকের লেখার লিস্ট

অক্টো. ১১

সুখ পাখী

শ্রাবণ ফিরে গেলে প্লাবন হবে না পাখি দিন বয়ে যায় বনানীর আড়ালে স্নিগ্ধ ছায়া ফলে আয় পাখি আয় । সাতান্ন কেটে গেলো খোলসে লুকিয়ে মুখ ঝরলো আঁখি নীর পাখায় ঝড় তুলে ধরা দে এবার পেছনে পড়ে থাক্ তিতাসের তীর । অনেক হয়েছে খেলা গোমতীর কূলে শিকারী ফেলেছে জাল নূপুর পায়ে ধরা দে পাখি এভাবেতো আর …

বিস্তারিত

সেপ্টে. ২৩

ই-কাব্য গ্রন্থঃ অজাত পদ্ম এবং আমি ফিরে যাবো আমার পর্ণ কুটিরে।

ডাউনলোড করুন এবং পড়ুন——— ০১। http://www.jalchhabibatayan.com/2016/08/blog-post_10.html . Ohjat Padmo-Mofizul Islam Khan . https://www.scribd.com/document/320870792/Ohjat-Padmo- কবিতা গ্রন্থ –MOFIZU Islam-Khan ০২। https://www.scribd.com/document/324407153/ আমি ফিরে যাবো আমার পর্ণ কুটিরে https://www.scribd.com/document/324407153

সেপ্টে. ১৭

তোমার নির্ভাবনায় কাটছে সময়

উড়িয়ে দিয়েছো ঘুড়ি মেঘলা আকাশে ঝড় বৃষ্টি তুফান কারো কারো পেছনে লেলিয়ে দিয়েছো পাগলা কুত্তার মতো অবিরাম কেবল ঘেউ ঘেউ তাড়িয়ে বেড়ায় । ঘর দিলে না বাড়ি দিলে না অর্থবিত্ত কিছুই দিলে না তবে কেনো পুষ্মময় সংসার দিলে, আগুনজ্বলা পেট দিলে রাক্ষুসী ক্ষুধা দিলে, কষ্টেভরা জীবন দিলে? ধন দিলে না, খাবার দিলে না, সুখ দিলে …

বিস্তারিত

মে ২০

দৃশ্যাবলী / মফিজুল ইসলাম খান

বুকের উপর দিয়ে এই যে সড়ক এঁকে বেঁকে চলে গেছে দেশান্তরে সামনে তার ডবল সাবের বাঁক বাঁকের বাঁয়ে হিজলতলীর হাট । হাটের পা তলতল আনকিজলা জলার কিনার ঘেঁষে যদি যান দেখবেন মাথা নুয়ে দাঁড়িয়ে আছে এক জীর্ণ বিদ্যাপীট ন্যাড়া বটবৃক্ষ খোলামেলা বারান্দা যুগ যুগ অধিবাসী বেদেনীর দল কাচুলিবিহীন বুকের পাটাতন ভীষণ ক্রুদ্ধ পৃথিবী নিরব হলে …

বিস্তারিত

জানু. ৩০

স্বদেশ / মফিজুল ইসলাম

স্বদেশ তখন কাম্য ছিলো একটি আজন্ম ঠিকানার জন্য ছিলাম উন্মাদ । তাই হালের বলদ, লাঙ্গল জোয়াল, বাড়ি ঘর, বিষয় আশয়, পরিবার পরিজন ফেলে দিয়ে কাদাময় হাতে তুলে নিয়ে ছিলাম অস্ত্র যাবতীয় যুদ্ধ সরঞ্জাম । সাধের এই দেহ, দেহে লুকানো প্রাণ অবলীলায় সঁপে দিয়েছিলাম কামানের মুখে প্রেমের কথা নারীর কথা তার গোপন সম্পদের বাহারী চমক ছিলো …

বিস্তারিত

জানু. ১০

কাসেমের মা

কলেজ থেকে কাসেম আর গেলো না ফিরে তার ছোট্ট গাঁয়ে । কলেজ থেকে রাজপথ, রাজপথে মিছিল মিছিলে মিছিলে ঠাঁই পেলো সে রাজার জেলে । কাসেম আর গেলো না ফিরে তার ছোট্ট গাঁয়ে কাসেমের মা কেঁদে কেঁদে হয়রান আকুল ব্যাকুল । একদিন সকাল দশটা কাসেম এলো গঞ্জের কলেজে কলেজ থেকে রাজপথ, রাজপথে মিছিল বেলা গেলো রাত …

বিস্তারিত

ডিসে. ০১

মাফিয়ার বাপ/মফিজুল ইসলাম খান

স্বপ্ন দেখে কি আর হবে স্বপ্নতো স্বপ্নই থেকে, যায় ফল ধরে না আকাশে ঝুলে রূপালী চাঁদ – মাটিতে নামে না মেঘের আড়ালে হারিয়ে যায় মাফিয়ার বাপ স্বপ্ন দেখে কি আর হবে? গরিব মানুষের এই এক দোষ যখন তখন স্বপ্ন দেখেঃ তারা ভরা আকাশ জোসনাময় পৃথিবী আলোয় ঝলমল লাল পরী নীল পরী মায়া মায়া চোখ ধনীর …

বিস্তারিত

নভে. ০৯

নির্বাসনে যাবো আমি

নির্বাসনে যাবো আমি নির্বাসন দাও যদি জনারণ্যে । কোলাহল আমার পছন্দ নয় তবু মাথা পেতে নেবো এই অগ্নিশিখা জ্বলে জ্বলে হবো ছাই বিধাতার সুনিপুন বলি আমি এক জিন্দালাশ । বাজাবো মোহন সুর নির্বাসনে মাথায় বাঁধবো রুমাল রক্ত লাল হাতে তুলে দাও যদি রঙ্গিলা বাঁশি । মনে বড় সাধ ছিলো এই কৃষ্ণকলি কৃষ্ণ প্রেমের জোয়ারে ভেসে …

বিস্তারিত

অক্টো. ২৫

তুমি রঙ্গিলা যাদুকর

কতোদিন খুঁজেছি তোমায় ভালোবাসার সবুজ বৃত্তে কতো রাত কেটেছে ব্যাকুল তোমার পথ পানে চাহিয়া কতো দিবস রজনী আমি করেছি গোসল দুই নয়নের তপ্ত জলে নূরের কারিগর এলে না তুমি আমার ঘরে, আমি পেলাম না তোমার মায়াময় নূরের ঝলক । জীবন পথের আঁকে বাঁকে কতোকাল ডেকেছি তোমায় শুন্যে তুলে জীর্ণ দুই হাত সোনা বন্ধু আমার লাল …

বিস্তারিত

অক্টো. ০৩

বুঝলো না কেউ

মনের দুঃখ আমি কারে বলি কারে দেই তার ভাগ বুঝলো না কেউ জ্বলে পুড়ে ছারখার তৃষিত হৃদয় জল দিলেও নেভে না এই অনলের ঢেউ । বুকের রক্ত মাখা প্রেম ভালোবাসা বিলিয়ে দিয়েছি সব পৃথিবীর বুকে সুখের খবর তবু ভাসে না বাতাসে বার বার ফিরে আসে পরাজিত বীর খালি হাত খালি পেট লক্ষ্যভ্রষ্ট তীর । বিলিয়ে …

বিস্তারিত

সেপ্টে. ২৬

অজাত পদ্ম

কূল নাই কিনার নাই জীবন নদীর জলে চলছি ভেসে অবিরাম আমি এক নাম গোত্রহীন অজাত পদ্ম আমার এবড়ো থেবড়ো দেহ, বিষের অনলে পোড়া দগদগে কপাল । নদীর এ পারে কাঁটা ওপারে বিষের শুল ওঁৎ পেতে আছে হায়েনার মতো কাছে পেলেই ছিন্নভিন্ন করে বসাবে ভাগা । আমি তাই নিরূপায় মাথায় লাল পট্টি বেঁধে ঘুরছি চরকির মতো …

বিস্তারিত

আগস্ট ২৯

রাত এগিয়ে গভীর হলে

রাত এগিয়ে গভীর হলে হাওয়া বেতাল হয় কল্কির গন্ধে দিশেহারা বাউল দোতারায় এঁকে যায় জীবনের ছবি । তার নিজস্ব রমণী প্রেম কামনার বহিৃশিখা একা বিছানায় পুড়ে পুড়ে ছাই হয় বিচ্ছেদ দহনে । রাত এগিয়ে গভীর হলে একদল নেশাখোর যুবক তড়িঘড়ি ঢুকে পড়ে বাউলের ঘরে তালে তালে তুলে নেয় একতারা দোতারা বাউলের জীবন নিজস্ব রমণী । …

বিস্তারিত

আগস্ট ২১

ঝলসানো মানবতা

ভোরের আবছা আলোয় বৃষ্টি ভোজা এক দল উপবাসী কাক গুলশানের এঁটো স্তুপে জ্বলে ওঠে হিংসায় কা কা রবে গগণ বিদারী প্রতিবাদ জানায় লাফিয়ে লাফিয়ে টোকা মারে বিধ্বস্ত কুমারী সখিনা বানুর মুন্ডিত মুন্ডে । আমল দেয় না কুমারী প্রতিবাদের ঝড় শুন্যে উড়িয়ে বেছে বেছে তুলে নেয় খাদ্য নামক দ্রব্যাদি কুতকুত ঘোলা চোখে আনন্দ অশ্রু । ভোরের …

বিস্তারিত

আগস্ট ১৩

যাবার ঠিকানা

অবাধ হাওয়া মাঝ রাতে নেশায় বিভোর চালকের বুকে ঢেউ তোলে সরাৎ সরাৎ । রসিক চালক চোখ বুজে নীলিমায় খোঁজে বলাকা যুগল ব্রেক ছিড়ে যায় । গন্ডা গন্ডা মৃত দেহ রাস্তার ধারে প্রহর কাটায় বেলা যায় । হাত পা ছড়িয়ে পড়ে থাকে লাশ সারি সারি কোথায় যে বাড়ি কোথায় যে ঘর কোথায় বাবা মা দারা পুত্র …

বিস্তারিত

আগস্ট ০৪

জলে ভেজা যৌবন

অবিরাম জলধারা শ্রাবণ দুপুর পাতায় পাতায় সুর ছন্দে ছন্দে খেলায় বিভোর সব গাছ গাছালি উতাল মাতাল মন ছলাৎ ছলাৎ নিঠুর বন্ধু তুই লুকালি কোথায়? ঠাঁটে ঠোঁটে চোখে চোখে চাতক চাতকী জলজ ভালোবাসায় একাকার সোনা বন্ধু আমার অভাগীরে একা ফেলে পরবাসে তুই কোন্ রূপসীর প্রেমে আকুল ব্যাকুল? শনশন্ বায়ু বয় ঘুম নেই চোখে নিকষ কৃষ্ণ রাত …

বিস্তারিত

আরো পূর্বের লেখাসমূহ «