«

»

Jun ২১

থাক আর লাগবে না

থাক আর লাগবে না, অনেক হয়েছে,
ক্ষমতাটুকু রেখে দিন, আপনি-ই ভাল আমাদের নেতা,
দরকার নেই আমাদের রাজনিতিক অধিকার, ঐটুকু তুমি নিয়ে নাও,
শুধু আমাদের বাঁচতে দাও, আর পারছি না।
 
আর কত, আর কী দেখব?
অপেক্ষায় ছিলাম, হয়ত এক রাশ সাদা কাশফুল নিয়ে,
কেউ আসবে!! আরও বলবে, আর হবে না,
আর কেউ লম্বা বেত নিয়ে গালি ভর্তি হুমকি দিবে না,
চাকরি থেকে জোড় করে বের করে দিবে না,
কিংবা অন্যায় ভাবে জাতীয়তার কারণে প্রমেশন দিবে না।
 
 
কিন্তু আমাদের তো শুরুতেই ভুল ছিল,
কাশ ফুল নিয়ে কি হবে? আমরাই তো কাশ ফুল,
অযন্তে বেড়ে উঠা সামান্য কিছু মানুষ,
যেহেতু আমাদের ক্ষমতা নেই, মরলেও আমাদের দাম নেই,
আর বিশাল মানব জাতি, নিজেদের জাতি অধিকার নিয়ে ব্যাস্ত,
তাই, ভুল আমাদেরই, দোষ না করলেও দোষ আমাদেরই,
ক্ষমতটুকু রেখে দাও, তোমার কালো হয়ে যাওয়া ঋদয় তোমার থাক,
আমরা না হয়, ফুটো হওয়া নৌকায় উঠি,
আর সমদ্র সৌকতে পরে থাকি।
 
ক্ষমতা তোমারই থাক,
আর যারা সাহায্যের আশা দিয়ে,
পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে ছিলেন,
আপনাদের সাহায্য আর লাগবে না,
আমরা তো সমুদ্র সৈকতেই পরে আছি,
সব কিছু হারানোর পরও ক্লাস রুমগুলিতে আমাদের জন্য জায়গা নেই,
কি অন্যায় করেছিলাম আমরা, সেটাও জানা নেই।

 

১ comment

  1. 1
    মাহফুজ

    (০৪:৭১) হে বিশ্বাসীগণ! নিজেদের অস্ত্র তুলে নাও এবং পৃথক পৃথক সৈন্যদলে কিংবা সমবেতভাবে বেরিয়ে পড়।
    (০৪:৭৫) আর তোমাদের কি হল যে, তেমারা আল্লাহর পথে লড়াই করছ না দুর্বল সেই পুরুষ, নারী ও শিশুদের পক্ষে, যারা বলে, হে আমাদের পালনকর্তা! আমাদিগকে এই জনপদ থেকে নিষ্কৃতি দান কর; এখানকার অধিবাসীরা যে অত্যাচারী! আর তোমার পক্ষ থেকে আমাদের জন্য পক্ষালম্বনকারী নির্ধারণ করে দাও এবং তোমার পক্ষ থেকে আমাদের জন্য সাহায্যকারী নির্ধারণ করে দাও।
    ন্যায্য অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে মুসলিমদেরকে শক্তি সঞ্চয় ও সমবেতভাবে সংগ্রাম করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সুতরাং এ ছাড়া মুক্তির অন্য কোন পথ আছে কি?

Leave a Reply